বিশ্বকে চমকে দিয়ে এবার ‘হালাল’ নাইটক্লাব খুলছে সৌদি আরব!

বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০১৯ ৬:১৪ অপরাহ্ণ

কট্টরপন্থী সৌদির সংস্কৃতিতে অনেকদিন ধরেই নানা পরিবর্তন এসেছে। নিজের চিরচেনা খোলস থেকে বেরিয়ে আসছে তারা।

নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেয়া, সিনেমা হল নির্মাণ, মাঠে বসে নারীদের খেলা দেখার অনুমতিসহ অনেক কিছুতেই পরিবর্তন এনেছে সৌদি।

এরই অংশ হিসেবে এবার জেদ্দায় ‘হালাল’ নাইটক্লাব খুলতে যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের এই কট্টরপন্থী দেশটি। অ্যাডমাইন্ড হসপিটালিটি গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দুবাই ও বৈরুতের বিখ্যাত ব্র্যান্ড নাইটক্লাব হোয়াইটের কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে সৌদি আরবের জেদ্দায়। এতে বিলাসবহুল ক্যাফে এবং লাউঞ্জ থাকবে।

এই হালাল নাইটক্লাবে ওয়াটারফ্রন্ট থাকবে, এর সাথে থাকবে বিশ্বের খ্যাতনামা মিউজিক গ্রুপের পরিবেশনা। ইলেক্ট্রনিক ডান্স মিউজিক, কমার্সিয়াল মিউজিক, আরএনবি এবং হিপহপ মিউজিক উপভোগ করা যাবে এখানে।

এই নাইটক্লাবের লাউঞ্জের একটি অংশে থাকবে ড্যান্স ফ্লোর। নারী পুরুষ সবার জন্যে ড্যান্স এটা উন্মুক্ত থাকবে। হোয়াইটের সব ধরনের সুযোগ সুবিধাই এখানে পাওয়া যাবে। তবে এই নাইটক্লাবে মদ পাওয়া যাবে না। কারণ সৌদিতে মদ কেনাবেচা অবৈধ। কেউ যদি মদ কেনাবেচা করে তবে তাকে শাস্তি পেতে হয়।

গত কয়েক মাসে নারীপুরুষের অংশগহণে বেশ কিছু ক্যাফেতে পার্টির আয়োজন করা হয়। কিন্তু সৌদি সরকার লাইসেন্স না দেয়ায় উদ্যোক্তারা এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেনি। এমনকি গত বছর এ ধরনের একটি মিউজিক্যাল পার্টির আয়োজন করায় একটি ক্যাফে বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

তবে সৌদিতে বেশ কিছুদিন ধরেই সঙ্গীতানুষ্ঠানের হিড়িক পড়েছে। গত এক বছরে সৌদির বিভিন্ন শহরে মারিয়াহ ক্যারে, ইনরিক, দ্য ব্ল্যাক আইড পিস, ডেভিড গুয়েতা, তিয়েসতো, সিন পল এবং অ্যাকনের মতো বিশ্বের খ্যাতনামা শিল্পী ও মিউজিক গ্রুপের পরিবেশনায় বেশ কিছু সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ দীর্ঘদিন যৌবন ধরে রাখতে চান? নিয়মিত এই ৮টি খাবার খান!

প্রাকৃতিক নিয়মেই যদিও আমাদের বয়স বাড়ে, কিন্তু সত্যটা এই যে কেউই আসলে তা মন থেকে মেনে নিতে পারেন না। আর তাই নিজেকে চির তরুণ রাখতে আমাদের চেষ্টার অন্ত নেই।

তারুণ্য ধরে রাখতে অনেকেই কসমেটিক সার্জারি, ওষুধ, বিভিন্ন ক্ষতিকর উপাদান গ্রহন করে থাকেন যা খুবই ক্ষতিকর শরীরের জন্য। অথচ নিজের যৌবন দীর্ঘদিন ধরে রাখার জন্য এতো ঝামেলা করার কোনো প্রয়োজন নেই। প্রয়োজন কেবল খাদ্য তালিকায় সঠিক খাবার রাখবার!

যৌবন এমন এক জিনিস যা সবাই ধরে রাখতে চান। প্রাকৃতিক নিয়মেই যদিও আমাদের বয়স বাড়ে, কিন্তু সত্যটা এই যে কেউই আসলে তা মন থেকে মেনে নিতে পারেন না। আর তাই নিজেকে চির তরুণ রাখতে আমাদের চেষ্টার অন্ত নেই।

তারুণ্য ধরে রাখতে অনেকেই কসমেটিক সার্জারি, ওষুধ, বিভিন্ন ক্ষতিকর উপাদান গ্রহন করে থাকেন যা খুবই ক্ষতিকর শরীরের জন্য। অথচ নিজের যৌবন দীর্ঘদিন ধরে রাখার জন্য এতো ঝামেলা করার কোনো প্রয়োজন নেই। কারণ খুব সহজেই কিছু বিশেষ খাবার খাওয়ার মাধ্যমে নিজের যৌবন ধরে রাখতে পারবেন আপনি। আসুন জেনে নেয়া যাক এমন ৮টি খাবার সম্পর্কে যারা আপনাকে রাখে চির তরুণ।

ডার্ক চকলেটঃ অনেকেই চকলেট ভালোবাসেন। যারা চকলেট ভালোবাসেন তাদের জন্য ভালো খবর হলো ডার্ক চকলেট বয়স ধরে রাখতে সহায়তা করে। ডার্ক চকলেটে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে। তাই যারা নিয়মিত প্রতিদিন ছোট এক টুকরা ডার্ক চকলেট খান তারা দীর্ঘদিন যৌবন ধরে রাখতে পারেন।

সামুদ্রিক মাছঃ সামদ্রিক মাছ যৌবন ধরে রাখতে সহায়ক। দীর্ঘ দিন যৌবন ধরে রাখতে চাইলে নিয়মিত খাবার তালিকায় লাল মাংস বাদ দিয়ে সামুদ্রিক মাছ রাখুন। তাতে শরীরে প্রয়োজনীয় প্রোটিনের চাহিদা পূরণ হয়ে যাবে এবং যৌবন ধরে রাখা যাবে বহুদিন।

অলিভ অয়েলঃ অলিভ অয়েল একটি উপকারী তেল। খাবার রান্নার সময় অলিভ অয়েল ব্যবহার করলে শরীরে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের পরিমান কম থাকে এবং সহজে মেদ জমে না। এছাড়াও প্রতিদিন ঘুমাতে যাওয়ার আগে ত্বকে অলিভ অয়েল ম্যাসাজ করে ঘুমালে ত্বকে বলিরেখা পরে না সহজে। ফলে দীর্ঘ দিন যৌবন ধরে রাখা যায়।

গাজর ও টমেটোঃ গাজর ও টমেটো ত্বক ও স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। বিশেষ করে যৌবন ধরে রাখার ক্ষেত্রে এই দুটি সবজির জুড়ি নেই। এগুলোতে প্রচুর পরিমানে ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে। এছাড়াও এতে আছে বিটা ক্যারোটিন ও লুটেইন যা শরীরের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করতে সহায়তা করে।

আঙ্গুরঃ বয়স ধরে রাখতে আঙ্গুরের জুড়ি নেই। আঙ্গুরে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আছে। ফলে নিয়মিত আঙ্গুর খেলে ত্বক ও দেহ সুন্দর ও সুস্থ থাকে।

ব্রকলিঃ ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে যা বয়সজনিত বিভিন্ন অসুখ থেকে দেহকে রক্ষা করে এবং শরীরের বুড়িয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়াকে ধীর করে ফেলে।

টক দইঃ টক দই মেদ ও কোলেস্টেরল কমাতে সহায়তা করে। দইয়ে প্রচুর প্রোটিন ও ক্যালসিয়াম আছে যা শরীরের গঠন ভালো রাখে এবং হাড়ের ক্ষয় রোধ করে।

এছাড়াও দই ত্বককে রাখে বলিরেখা মুক্ত। তাই যৌবন ধরে রাখতে চাইলে প্রতিদিন দই খান।

পালং শাকঃ পালং শাকে প্রচুর পরিমানে লুটেইন আছে যা শরীরের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করে এবং যৌবন ধরে রাখতে সহায়তা করে। নিয়মিত পালং শাক খেলে ত্বক চোখের বয়সজনিত সমস্যা কমে যায়। এছাড়াও এতে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন আছে বলে পালং শাক শরীরের নানা অসুবিধা দূর করে এবং শরীরে পুষ্টি ও শক্তির যোগান দেয়।