বাংলাদেশের কাছে ম্যাচ হেরে যা বললেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক!

সোমবার, জুন ১৭, ২০১৯ ৬:৪০ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন যেন পুরোটাই সাকিব ময়। প্রথম দুই ম্যাচ টানা হাফসেঞ্চুরির পর। পরবর্তী দুই ম্যাচে টানা দুটি সেঞ্চুরি করে রেকর্ড সৃষ্ট করেছেন। এর আগে দুটি টানা সেঞ্চুরি করেন মাহমুদউল্লাহ। গেল বিশ্বকাপে তিনি পরপর দুটি সেঞ্চুরি হাকান।

আর এবার তার রেকর্ডে ভাগ বসালেন বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সাকিব এই রেকর্ডের পাশাপাশি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে সবচেয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরি মালিক। তিনি নিজেই নিজের রেকর্ড ভেঙেছেন। ৮৩ বলে ১৩ চারে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন সাকিব। ৯৯ বলে ১৬ টি চার হাঁকিয়ে ১২৪ রানে অপরাজিত থেকে দল রেকর্ডীয় জয় উপহার দেন। এ বিশ্বকাপেই ইংলিশদের বিপক্ষে ১১৯ বলে ১২টি চার ও এক ছক্কায় ১২১ রান করেন সাকিব।

এর আগে চলতি বিশ্বকাপের ২৩তম ম্যাচে টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩২১ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৩২২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করে বাংলাদেশ দলের দুই ওপেনার তামিম ও সৌম্য। কিন্তু ব্যক্তিগত ২৯ রানে রাসেলের বলে গেইলকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ইতিহাস গড়ে জয় পেল টাইগাররা। ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে এই প্রথম ৩২২ রানের পাহাড় ডিঙিয়ে জয় পেল বাংলাদেশ। এর আগে গত বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৩১৯ রানের রেকর্ড তাড়া করে জয় পেয়েছিল মাশরাফিরা।

এরপর ব্যাট হাতে দলের হাল ধরেন তামিম ও সাকিব। কিন্তু ৪৮ রান করে রান আউটের শিকার হয়ে ফিরেন তামিম। ১ রান করে থমাসের বলে হোপের হাতে ধরা পড়ে ফিরেন মুশফিক। অন্যদিকে ৮৩ বলে ১৩ চারে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন সাকিব ও ৪৩ বলে ৪ চার ও ১ ছয়ে হাফসেঞ্চুরি করেন লিটন।

শেষ পর্যন্ত দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন লিটন ও সাকিব। ৪১.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ দল। সাকিব ১২৪ ও লিটন ৯৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। আর দেশের ইতিহাসেও চতুর্থ উইকেট জুটিতে সবচেয়ে বড় জুটির রেকর্ড গড়েছেন এই দুই জন। নিজের ব্যক্তিগত এতো রেকর্ডের সঙ্গে লিটনকে নিয়ে সাকিব গড়েছেন বাংলাদেশের পক্ষে আরও একটি রেকর্ড। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে এখন সর্বোচ্চ রানের জুটি এই দুইজনের। আজ (সোমবার) ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এই রেকর্ড গড়েন লিটন ও সাকিব।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ ৯৬ রানের ইনিংস খেলেন শাই হোপ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭০ রান আসে লুইসের ব্যাট থেকে। এছাড়াও হেটমায়ার ৫০, হোল্ডার ৩৩, পুরান ২৫, ব্রাভো ১৯ রান করেন। বাংলাদেশের হয়ে সাইফউদ্দিন ও মোস্তাফিজ ৩টি করে ও সাকিব ২টি উইকেট শিকার করেন।

বাংলাদেশের সাথে ম্যাচ হেরে সংবাদ সম্মেলনে উইন্ডিজ অধিনায়ক হোল্ডার বলেন, বাংলাদেশের জন্য শুভ কামনা আশা করি তারা আরো ভাল খেলবে।আমাদের ব্যাটিং খুব ভাল ছিল বোলিং লাইন আপ টা আরেকটু ভাল পেলে আমরা জয় পেতাম।