গোপন খবর ফাঁসঃ বাংলাদেশর বিপক্ষে যে কারণে খেলবেন না কোহলি

শুক্রবার, জুন ২৮, ২০১৯ ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ

এবারের বিশ্বকাপের প্রথম দল হিসেবে ইতিমধ্যে সাত ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে অস্ট্রেলিয়া। ছয় ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ভারত। বিরাট কোহলিরা যদি নিজেদের পরের ম্যাচে ইংল্যান্ডকে পরাজিত করে তাহলে সরাসরি সেমিতে চলে যাবে। আগামী ২রা জুন বাংলাদেশের বিপক্ষে নামবে টিম ইন্ডিয়া। আগামী ২ জুলাই ভারতের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ। ৫ জুলাই লর্ডসে বাংলাদেশ লড়বে পাকিস্তানের বিপক্ষে। সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে এক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ বাংলাদেশের। ম্যাচটিতে এ সিনিয়র ক্রিকেটার না খেলতে পারলে সেটি নিঃসন্দেহে বড় এক ধাক্কা হবে বাংলাদেশ দলের জন্য। শিখর ধাওয়ান না থাকায় ভারতের টপ-৭ এর সবাই ডানহাতি।

আর ভারত স্পিনে বিশ্বের সেরা দল আমরা সবাই জানি তারউপর খেলা এজবাস্টনে পিচ ফ্ল্যাট মিরাজের সিম্পল অফস্পিন তারা এটাক করবে। আর মোসাদ্দেক অফস্পিনার হিসেবে ৪-৫ ওভার দিতে পারবে। এখন আসি কেন রুবেলকে চাই গত ২-১ বছরের হিসেব করলে দেখা যাবে রুবেল আমাদের পেসারদের মধ্যে সেরা মিডল ওভার বোলার আর আমি মনে করি এই কন্ডিশনে সে আমাদের সেরা মিডল ওভার বোলার৷ অস্ট্রেলিয়ার সাথে রুবেল কিন্তু তার প্রথম ৫ ওভার যথেষ্ট ভালো করেছে। ওইদিন যদি কোন বোলার অজি ব্যাটসম্যানদের একটু হলেও প্রবলেম দিয়ে থাকে সেটা রুবেল। হ্যা সে ডেথে মার খাইছে সেটা ভিন্ন কথা। আপনি মিডল ওভারে উইকেট না পেলে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ভারতের মত টিম লাস্ট ১০ ওভারে চার্জ করবেই৷

ঠিক এই কারণেই মিডল ওভারে আপনাকে উইকেট নিতে হবে ৪০ ওভারের মধ্যে ভারতের কমপক্ষে ৫ উইকেট না নিতে পারলে শেষ ১০ ওভারে আপনার খবর আছে৷ হ্যা এটার কোন গ্যারান্টি নাই যে রুবেল মিডল ওভারে ২-৩ উইকেট নিবেই কিন্তু সে অবশ্যই ভারতের সাথে ওই মাঠে মিরাজের চেয়ে ভালো অপশন হবে।সেক্ষত্রে মাহমুদুল্লাহর ইনজুরিতে রুবেল থেকে বেটার অপশন আর নেই। সেই ম্যাচের আগেই বাংলাদেশ দল নেওয়া শুরু করেছে প্রস্তুতি। তবে এর আগে উঠেছে গুজন। পাক একজন সাবেক ক্রিকেটারের অতে এই ম্যাচ ছেড়ে দিবে ভারত। পাকিস্তানের একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে বাসিত আলী বলেন, ভারত কখনোই চায় না পাকিস্তান বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলুক।

তাদের দুই ম্যাচ রয়েছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। এমনকি সেই ম্যাচে বিশ্রামে থাকতে পারেন কোহলিও আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভারত কেমন খেলেছে, কীভাবে খেলেছে তা তো সবাই দেখেছি। পাকিস্তানের হয়ে ১৯টি টেস্ট ও ৫০টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলা বাসিত আলী আরও বলেন, ভারত যদি বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার সঙ্গে ইচ্ছা করে হেরে যায় তাহলে কেউ কিছু বলতে পারবে না। কারণ তারা তো সত্য স্বীকার করতে ভয় পায়। দেখবেন, পরের ম্যাচগুলোতে ভারত এমন করে খেলবে যে, কেউ বুঝতেই পারবে না ম্যাচে কী হচ্ছে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে যেমন দেখা গিয়েছে।