আজ রশিদ খানের ভক্ত টাইগাররা

শনিবার, জুন ২৯, ২০১৯ ৬:০১ পূর্বাহ্ণ

রশিদ খান বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা স্পিনার। আফগানিস্তানের এই তারকা খুব কম সময়েই সারা বিশ্বে নাম করেছেন। সারা বিশ্বে তার জনপ্রিয়তাও আছে। তবে টাইগার ভক্তরা তাকে শুরুর দিকে পছন্দ করলেও এখন তার সমালোচনাতেই ব্যস্ত থাকে বেশি। সেটারও কারণ আছে। বড়ই দাম্ভিক কথা বার্তার জন্যই বিখ্যাত যেন তিনি। শুধু সে নয়, তার দল আফগানিস্তানের অনেক ক্রিকেটারই যেন মাটিতে পা পড়েনা। যোগ্যতার চেয়ে বেশি কথাই বলা তাদের যেন নিয়মিত কাজ হয়ে দাড়িয়েছে। যার কারণে এখন টাইগার ভক্তদের কাছে আফগানিস্তান দাম্ভিক দল ছাড়া আর কিছুই না।

কিন্তু এই দাম্ভিক দলটিকেই আজ মন প্রান দিয়ে সাপোর্ট করবে বাংলাদেশের ভক্তরা। সেটাও অবশ্য নিজেদের স্বার্থেই। আজ পাকিস্তান যদি আফগানিস্তানের কাছে হেরে যায় তাহলে বাংলাদেশের জন্যই ভালো। এতে করে সেমির লড়াইয়ে বাংলাদেশের প্রতিদ্বন্দ্বী থেকে সরে যাবে পাকিস্তান। তাই আজ আফগানিস্তানের ক্রিকেটাররা ভালো করুক সেটাই চাওয়া টাইগার সমর্থকদের।

স্টার্ক বুমরাহদের চেয়ে এগিয়ে সাইফুদ্দিনঃ চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল বোলার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। ৫ ম্যাচ খেলে সাকিব আল হাসানের সমান ১০টি উইকেট পেলেও সাকিব এক ম্যাচ বেশি খেলায় এগিয়ে আছেন সাইফউদ্দিনই। ব্যাটসম্যানদের স্বর্গ খ্যাত ইংল্যান্ডের উইকেটগুলোতে বাংলাদেশের অন্য পেসাররা খুব একটা কার্যকরী ভূমিকা রাখতে না পারলেও ব্যতিক্রম সাইফউদ্দিন। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের দিক থেকেও দ্বাদশ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা বোলার তিনি।

সাইফউদ্দিন এগিয়ে আছেন ইয়র্কার ডেলিভারির দিক থেকেও। সবচেয়ে বেশি ইয়র্কার করার দিক থেকে তার অবস্থান দ্বিতীয়। তালিকায় বাকি সব বোলারই ব্যাটসম্যানদের ভীতি ছড়ানো পেসার। দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কা ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসের ১৫ ওভার পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ৩৬টি ইয়র্কার ডেলিভারি করেছেন শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা। ২৫টি ইয়র্কার ডেলিভারির মাধ্যমে ব্যাটসম্যানদের বিভ্রান্ত করা সাইফউদ্দিন আছেন মালিঙ্গার পরই।

মালিঙ্গার কাছাকাছি যেতে না পারলেও সাইফউদ্দিন এখন পর্যন্ত এগিয়ে আছেন অস্ট্রেলিয়া মিচেল স্টার্ক ও মার্কাস স্টয়নিস, নিউজিল্যান্ডের লকি ফার্গুসন এবং ভারতের জাসপ্রিত বুমরাহদের থেকে। সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকারি স্টার্ক ইয়র্কার ডেলিভারি করেছেন ২৪টি, অর্থাৎ সাইফউদ্দিনের চেয়ে একটি কম। চতুর্থ স্থানে থাকা স্টয়নিসের ইয়র্কার ডেলিভারির সংখ্যা ১৯টি। আর ফার্গুসন ও বুমরাহ দুজনই ইয়র্কার করেছেন ১৮টি করে।